| ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ৩১ বৈশাখ ১৪২৮

সহজ পথ কঠিন করে দিলো বার্সা

২০২১ এপ্রিল ৩০ ১৫:০২:০৫
সহজ পথ কঠিন করে দিলো বার্সা

ম্যাচ জয়ের সাথে সাথেই পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠে যাবে মেসির বার্সা। এবং শিরোপা জয়ের পথটা হবে সহজ। লিওনেল মেসির গোলে শুরুটাও দারুণ হলো বার্সেলোনার। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে অল্প সময়ে পাল্টে গেল চিত্র।

পাল্টা-আক্রমণে দারুণ দুটি গোলে অসাধারণ এক জয় নিয়ে ফিরল গ্রানাদা। কাম্প নউয়ে বৃহস্পতিবার রাতে লা লিগার ম্যাচে ২-১ গোলে জিতেছে গ্রানাদা। দারউইন মার্চিস সমতা টানার পর ব্যবধান গড়ে দেন হোর্হে মোলিনা। এখন শিরোপার ধরার সিঁড়ি আরো কঠিন হয়ে দাঁড়াল বার্সার কাছে।

বাকি থাকা ৫ ম্যাচের সবকটি জিততে হবে তাদের। এতেই নয়, অন্যের জয়-পরাজয়ের দিকেও তাকিয়ে থাকতে হবে চাতকের ন্যায়। সেসম সমীকরণ নিজেদের পক্ষে গেলে ২৭তম লা লিগা শিরোপা জিততে পারবে বার্সেলোনা।এমন সমীকরণ মাথায় নিয়েই বৃহস্পতিবার রাতে ন্যুক্যাম্প ছেড়েছে বার্সা।ম্যাচের প্রায় ৮২ ভাগ সময় বলের দখল বার্সার নিয়ন্ত্রণে ছিল। গ্রানাডার পোস্ট বরাবর ১৬টি শট করে তারা। কিন্তু জালে প্রবেশ করেছে মাত্র ১টি।

অন্যদিকে মাত্র ১৮ ভাগ সময় বল পেয়ে দুটি শট লক্ষ্য বরাবর রাখতে পেরেছে গ্রানাডা। আর দুটি শটই সফল।ফলাফল ২-১ গোলের ব্যবধানে বার্সাকে হারায় গ্রানাডা।ম্যাচের ২৩ মিনিটে গ্রিজম্যানের সঙ্গে দারুণ বোঝাপড়ায় ডিবক্সে ঢুকে পড়ে বার্সা অধিনায়ক মেসি। সেটি জালে জড়িয়ে দিয়ে লিড নেন বার্সা অধিনায়ক।

প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার ঠিক আগমুহূর্তে সার্জিও বুসকেটসের দুর্দান্ত থ্রু পাসকে কাজে লাগাতে পারেননি মেসি। তার শটটি পায়ে লাগিয়ে লক্ষ্যভ্রষ্ট করে দেন গ্রানাডা গোলরক্ষক।ফলে ১-০তে লিড নিয়েই বিরতিতে যেতে হয় বার্সাকে।দ্বিতীয়ার্ধে ফিরেই পেনাল্টি স্পটের কাছ থেকে লক্ষ্যভ্রষ্ট শট নেন গ্রিজম্যান। হাতছাড়া হয় সহজ সুযোগ।

৬৩ মিনিটে তড়িৎগতিতে পাল্টা আক্রমণে উঠে বার্সারক্ষণকে বোকা বানিয়ে গ্রানাডাকে সমতায় ফেরান ডারউইন মাচিস।৭৯ মিনিটে গিয়ে লিড নেয় গ্রানাডা। স্কোর শিটে নাম তোলেন বদলি নামা ৩৯ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড জর্জ মোলিনা।তবু বার্সা সমর্থকদের ধারণা ছিল, বাকি ১০-১২ মিনিটে সমতায় ফিরবে কাতালানরা। কিন্তু একের পর এক আক্রমণে উঠেও গ্রানাডার জাল কাঁপাতে পারেননি মেসিসহ বার্সার ফরোয়ার্ডরা।ফলে ১-২ গোলের ব্যবধানে পরাজয় নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় বার্সাকে। অন্যদিকে ন্যু ক্যাম্পে প্রথম জয়ের উল্লাসে মাতে গ্রানাডা।

এই হারের পর ৩৩ ম্যাচে ২২ জয় ও পাঁচ ড্রয়ে বার্সেলোনার পয়েন্ট ৭১, সমান পয়েন্ট নিয়ে মুখোমুখি লড়াইয়ে এগিয়ে থাকায় রিয়াল দুই নম্বরে। শীর্ষে থাকা অ্যাটলেটিকোর পয়েন্ট ৭৩। শিরোপা লড়াইয়ে আছে সেভিয়াও, ৭০ পয়েন্ট নিয়ে চার নম্বরে আছে তারা।

পাঠকের মতামত:

ফুটবল এর সর্বশেষ খবর

ফুটবল - এর সব খবর



রে