| ঢাকা, রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ২৮ চৈত্র ১৪২৭

ফাখরের সেঞ্চুরি ও বাবরের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে পাকিস্তানের বিশাল সংগ্রহ

২০২১ এপ্রিল ০৭ ১৯:০৫:২৫
ফাখরের সেঞ্চুরি ও বাবরের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে পাকিস্তানের বিশাল সংগ্রহ

আগের ম্যাচে খেলেছিলেন অবিশ্বাস্য এক ইনিংস। ১৯৩ রানের বিশাল স্কোর করেও দলকে জেতাতে পারেননি পাকিস্তানি ওপেনার ফাখর জামান। যদিও ওই ম্যাচে তাকে আউট করার ধরণ নিয়ে তুমুল সমালোচনার শিকার হতে হয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকান উইকেটরক্ষক কুইন্টন ডি কককে। সেই ফাখর জামানের ব্যাট আবারও বেশ চওড়া হলো আজ দক্ষিণ আফ্রিকান বোলারদের সামনে।

সেঞ্চুরিয়নের সুপার স্পোর্টস পার্ক মাঠে আজ আবারও সেঞ্চুরি হাঁকালেন পাকিস্তানি এই ওপেনার। ১০৪ বলে ৯ বাউন্ডারি এবং ৩টি ছক্কার মার মেরে ১০১ রান করে আউট হয়েছেন তিনি। শুধু ফাখর জামানই নন, আজ ব্যাটে ঝড় তুলেছেন অধিনায়ক বাবর আজমও। আরেক ওপেনার ইমাম-উল হকও করেছেন হাফ সেঞ্চুরি। সবচেয়ে বড় কথা, শেষ মুহূর্তে জন ট্রেভর স্মাটসকে পিটিয়ে ঝড় তুলেছিলেন হাসান আলিও।

এই ইনিংসগুলোর ওপর ভর করে আজ স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকার সামনে ৩২১ রানের বিশাল লক্ষ্য ছুঁড়ে দিয়েছে পাকিস্তান। সেঞ্চুরিয়নে আজ সিরিজের শেষ ম্যাচ। যে কারণে এটা সিরিজ নির্ধারণের জন্য অঘোষিত ফাইনালও বটে। এমন গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে টস জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন দক্ষিণ আফ্রিকা অধিনায়ক টেম্বা বাভুমা। ব্যাট করার জন্য আমন্ত্রণ জানান পাকিস্তান।

ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই বড় স্কোরের ইঙ্গিত দেন দুই ওপেনার ইমাম-উল হক এবং ফাখর জামান। দু’জন মিলে গড়ে তোলেন ১১২ রানের বিশাল জুটি। ৭৩ বল খেলে ৫৭ রান করে আউট হন ইমাম-উল হক।এরপর বাবর আজম আর ফাখর জামান মিলে জুটি গড়ে তোলেন। এই জুটিতে উঠলো ৯৪ রান। দলীয় ২০৬ রানের মাথায় কেশভ মাহারাজের বলে হেনরিক ক্লাসেনের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান ফাখর জামান।

এরই মধ্যে গড়ে ফেলেন নিজের টানা দ্বিতীয় সেঞ্চুরি। ফাখর আউট হওয়ার পর স্কোর বড় করার সংগ্রাম শুরু করেন বাবর আজম। কিন্তু বাকি ব্যাটসম্যানরা ছিলেন শুধু আসা-যাওয়ার মিছিলে। মোহাম্মদ রিজওয়ান আউট হন ২ রান করে। সরফরাজ আহমেদ আউট হলেন ১৩ রান করে। ফাহিম আশরাফ করলেন ১ রান। মোহাম্মদ নওয়াজ আউট হলেন ৪ রান করে।

এরপরই হাসান আলি মাঠে নামেন এবং জুটি বাধেন বাবর আজমের সঙ্গে। শেষ মুহূর্তে এই জুটি খেললো মাত্র ৪ ওভার। উঠলো ৬৩ রান। ১১ বলে একাই ৩২ রান করলেন হাসান আলি। বাবর আজমও চলে গিয়েছিলেন সেঞ্চুরির দ্বারপ্রান্তে। ৭ বাউন্ডারি এবং ৩ ছক্কায় যখন সেঞ্চুরি প্রায় করেই ফেলছিলেন, তখন ইনিংসের শেষ বলেই আউট হন তিনি।

নামের সঙ্গে যুক্ত করেন ৯৪ রান। খেলেছেন ৮২টি বল। হাসান আলি ১১ বলে ৩২ রান করেছেন ১ বাউন্ডারি আর ছক্কা মেরেছেন ৪টি। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে কেশভ মাহারাজ নিয়েছেন ৩ উইকেট। ২টি নিয়েছেন এইডেন মারক্রাম, ১টি করে উইকেট নিয়েছেন আন্দিল পেহলুকাইয়ো এবং জেজে স্মাটস।

পাঠকের মতামত:

ক্রিকেট এর সর্বশেষ খবর

ক্রিকেট - এর সব খবর



রে