| ঢাকা, রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ২৮ চৈত্র ১৪২৭

রেকর্ড গড়লেন রুট

২০২১ ফেব্রুয়ারি ২৫ ২০:১৩:১১
রেকর্ড গড়লেন রুট

জো রুট তো শুধুই ব্যাটসম্যান। তিনি আবার বোলিং করতে পারেন নাকি? তবে টেস্ট ক্রিকেটে অকেশনাল বোলার তিনি। কোনো বোলার টানা বল করতে করতে ক্লান্ত হয়ে গেলে তাকে বিশ্রাম দেয়ার জন্য মাঝে-মধ্যে বল হাতে তুলে নিতেন তিনি। কিংবা নিয়মিত বোলাররা উইকেট পাচ্ছেন না, ব্রেক থ্রুর আশায় বল হাতে তুলে নিতেন তিনি।

কিন্তু সেই জো রুট যে এবার পুরো দস্তুর একজন স্পিনার হয়ে গেলেন! তিনি শুধু স্পিন বল ভালো খেলেনই না, তার হাতের ঘূর্ণি ব্যাটসম্যানদের কাবুও করে দিতে পারে।

বৃহস্পতিবার (আজ) জো রুটের দুরন্ত স্পিন বোলিংয়ের সাক্ষী থাকল বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রিকেট স্টেডিয়াম। আহমেদাবাদের মোতেরা স্টেডিয়ামে গোলাপি বলের টেস্টে ভারতের প্রথম ইনিংসকে একাই শেষ করে দিয়েছিলেন রুট। মাত্র ৮ রানে তুলে নিয়েছেন ৫ উইকেট। সে সঙ্গে টেস্ট ক্রিকেটে এক অনন্য রেকর্ড গড়লেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক। ইংল্যান্ড ক্যাপ্টেন হিসেবে ইয়ান বোথাম ও বব উইলিসকেও ছাপিয়ে গেলেন তিনি।

ইংল্যান্ডের ১১২ রানে জবাবে প্রথম ইনিংসে মাত্র ১৪৫ রানে গুটিয়ে যায় ভারত। ক্যাপ্টেন রুটের দুরন্ত বোলিংয়ের কল্যাণেই। ৬.২ ওভার হাত ঘুরিয়ে মাত্র ৮ রান খরচায় ভারতীয় ব্যাটিং লাইনআপের পাঁচ ব্যাটসম্যানকে প্যাভিলিয়নে ফেরান রুট। টেস্ট ক্যারিয়ারে প্রথমবার পাঁচ উইকেট নেওয়ার পাশাপাশি একগুচ্ছ রেকর্ডও গড়লেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক। টেস্ট ক্রিকেটে স্পিনার হিসেবে পাঁচ উইকেট নেওয়ার ক্ষেত্রে সবচেয়ে কৃপণ বোলিং এটাই।

মোতেরা স্টেডিয়ামে প্রথম গোলাপি বল টেস্টে ইংল্যান্ড ইনিংসের ৯টি উইকেটই তুলে নেন ভারতীয় দুই স্পিনার অক্ষর প্যাটেল ও রবিচন্দ্রন অশ্বিন। ৩৮ রান দিয়ে অক্ষর ৬টি এবং ২৬ রানে ৩ উইকেট নেন অশ্বিন। ভারতীয় ইনিংসেও ৯টি উইকেট তুলে নেন ইংল্যান্ডের দুই স্পিনার জো রুট এবং জ্যাক লিচ। রুট ৮ রান খরচ করে ৫টি এবং লিচ ৫৪ রান দিয়ে নেন ৪টি উইকেট।

ইংল্যান্ড অধিনায়ক হিসেবে টেস্টে সেরা বোলিং রুটের। এদিন তিনি পেছনে ফেলেন ইয়ান বোথাম ও বব উইলিসকে। ১৯৮১ সালে এজবাস্টনে ১১ রান দিয়ে পাঁচ উইকেট নিয়েছিলেন বোথাম। আর ১৯৮৩ সালে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ৩৫ রানে পাঁচ উইকেট নিয়েছিলেন অধিনায়ক উইলিস। এরপর থেকে ইংল্যান্ড ক্যাপ্টেন হিসেবে টেস্টে পাঁচ উইকেট নিলেন রুট।

রুটের পাঁচ শিকার রিশাভ পান্ত (১), রবিচন্দ্রন অশ্বিন (১৭), ওয়াশিংটন সুন্দর (০), অক্ষর প্যাটেল (০) এবং জসপ্রিত বুমরাহ (১)। পাঁচটি উইকেটের মধ্যে প্রথম তিনটি আসে তিন ওভারে কোনো রান না দিয়েই। এরপর শেষ দু’টি উইকেটের জন্য খরচ করে মাত্র ৮ রান।

রুটের বিধ্বংসী স্পিনের সামনে তিন উইকেটে ১১৪ রান থেকে ১৪৫ রানে শেষ হয়ে যায় ভারতীয় ইনিংস। শেষ সাত উইকেটে মাত্র ৩১ রান যোগ করে ভারত।

পাঠকের মতামত:

ক্রিকেট এর সর্বশেষ খবর

ক্রিকেট - এর সব খবর



রে