| ঢাকা, সোমবার, ৮ মার্চ ২০২১, ২৩ ফাল্গুন ১৪২৭

অবশেষে জানা গেলো মুস্তাফিজের আইপিএল না খেলার আসল কারন

২০২১ ফেব্রুয়ারি ২৩ ১৫:৫০:৪৪
অবশেষে জানা গেলো মুস্তাফিজের আইপিএল না খেলার আসল কারন

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট না খেলে আইপিএল খেলার ইচ্ছে প্রকাশ করে সাকিব আল হাসান। ইতোমধ্যে ছুটিও মঞ্জুর করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। সাকিবকে ছুটি দেওয়ার পর প্রশ্ন উঠেছিল আইপিএল দল পাওয়া আরেক বাংলাদেশি মুস্তাফিজুর রহমানের ছাড়পত্র নিয়ে। তবে বিসিবি সভাপতি জানিয়েছেন সিদ্ধান্ত মুস্তাফিজের, সে আইপিএল খেলতে চাইলে আটকাবেনা বোর্ড। এদিকে এবার মুস্তাফিজ বলছেন দেশ আগে, যদি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট দলে থাকেন তবে খেলবেন না আইপিএল।

আইপিএল ইস্যুতে গতকাল (২২ ফেব্রুয়ারি) বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের সাথে দেখা করেন মুস্তাফিজ। রাজস্থান রয়্য্যালসে নাম লেখানো বাঁহাতি এই পেসার বিসিবি সভাপতির কাছে জানতে চান সিদ্ধান্ত। সাকিবকে ছুটি দেওয়ার পর বাকিদের ক্ষেত্রেও একই পথে হাঁটছে বিসিবি। মুস্তাফিজকেও জানিয়ে দেওয়া হয়েছে টেস্ট খেলতে না চাইলে যেন চিঠি দেয় এখনই, আটকানো হবেনা তাকেও।

তবে মুস্তাফিজ নিজে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে রেখেছেন যদি কিন্তু। যেখানে দেশকেই প্রাধান্য দিচ্ছেন বেশি। শ্রীলঙ্কা সফরের টেস্ট দলে জায়গা পেলে আইপিএল খেলার ইচ্ছেকে মাটি দিবেন। আর দলে থাকবেন না এমন আভাস আগেই পেলে আইপিএলের জন্যই ব্যাগ গুছাবেন। তবে সেক্ষেত্রেও বিসিবির সিদ্ধান্তের দিকে তাকিয়ে থাকবেন কাটার মাস্টার খ্যাত এই পেসার।

আজ (২৩ ফেব্রুয়ারি) মিরপুরে সাংবাদিকদের মুস্তাফিজ বলেন, ‘যদি টেস্টে আমাকে রাখে, আমি টেস্ট খেলবো। যদি না রাখে তাহলে বিসিবি জানে…, বিসিবি যেটা বলবে আমি সেটা করবো। বিসিবি চাইলে রাজি না হওয়ার তো কিছু নাই।’

‘সবার আগে আমার দেশের খেলা ফাস্ট, শ্রীলঙ্কা টেস্টে যদি থাকি, তাহলে আমি টেস্ট খেলবো। যদি না থাকি তাহলে বিসিবি তো আমাকে বলবে যে আমি নাই। আমি বিসিবিকে বলবো, বিসিবি যদি আমাকে ছাড়ে তাহলে আমি আইপিএলে খেলবো। দেশ প্রেম আগে। দেশের বা আইপিএল খেলার বিষয়ে অন্য কোন চাপ নেই।’

২০১৫ সালে ওয়ানডেতে অভিষেক সিরিজে ভারতকে নাড়িয়ে দিয়েছিলেন মুস্তাফিজুর রহমান। রহস্যময়ী কাটার দিয়ে বিপাকে ফেলেছিলেন রোহিত শর্মা-রবীন্দ্র জাদেজাদের। সিরিজ সেরার পুরস্কার বাগিয়ে নিয়ে প্রমাণ করেছিলেন নিজের সামর্থ্য। বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টি-টোয়েন্টি লিগ আইপিএল (ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ) এ সুযোগ মেলে দ্রুতই।

২০১৬ সালে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের হয়ে খেলেন ১৬ ম্যাচ। ৭ এর কম ইকোনমিতে (৬.৯০) ১৭ উইকেট নিয়ে হন আইপিএলের ইমার্জিং ক্রিকেটার অব দ্য সিজন। আইপিএল ইতিহাসে এই পুরস্কার জেতা একমাত্র অভারতীয় ক্রিকেটার মুস্তাফিজ।

২০১৭ সালেও একই ফ্র্যাঞ্চাইজির হয়ে ছিলেন আইপিএলে। খেলেন অবশ্য মাত্র ১ ম্যাচ, ছিলেন উইকেটশুন্য। ২০১৮ সালে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের পক্ষে ৭ ম্যাচ খেলেছিলেন মুস্তাফিজ, নেন ৭ উইকেট।

এবারের আসরে ভিত্তিমূল্য ১ কোটি রুপিতে রাজস্থান রয়্যালস শিবিরের অংশ হয়েছেন মুস্তাফিজ।

পাঠকের মতামত:

ক্রিকেট এর সর্বশেষ খবর

ক্রিকেট - এর সব খবর



রে