| ঢাকা, রবিবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২১, ১০ মাঘ ১৪২৭

সম্মান দাও সম্মান নাও

২০২০ ডিসেম্বর ০২ ১৭:৫৭:৫২
সম্মান দাও সম্মান নাও

ক্রিকেটকে ভদ্রলোকের খেলা বলা হলেও মাঝে মাঝে তর্ক-বিতর্কে জড়াতে দেখা যায় ক্রিকেটারদের। সোমবার (৩০ নভেম্বর) লঙ্কা প্রিমিয়ার লিগের (এলপিএল) ক্যান্ডি টাস্কার্স এবং গল গ্লাডিয়েটর্সের ম্যাচে এমনই কাণ্ডে জড়িয়েছিলেন শহীদ আফ্রিদি এবং নবীন উল হক। যা নিয়ে বেশ কিছুক্ষণের মধ্যেই সরগরম হয় গণমাধ্যম।

বাকবিতাণ্ডের সময় তারা কি বলছিলেন সেটা দুর থেকে বোঝা না গেলেও পাকিস্তানের এক সাংবাদিক অবশ্য অল্প কিছুক্ষণ পরই টুইট করে তর্কের বিষয়বস্তু তুলে ধরেন। যেখানে আফ্রিদি ক্ষুব্ধ হয়ে নবীনকে বলেছিলেন ‘ছেলে, তোমার জন্মের আগে থেকে সেঞ্চুরি করি’। আফ্রিদির কথা ভালোভাবে নিতে পারেনি আফগানিস্তানের পেসারও।

মাঠের ঘটনা পেরিয়ে এরপর শুরু হয় টুইটারের গল্প। যেখানে আফ্রিদিকে ইঙ্গিত করে নবীন এক টুইটবার্তায় জানিয়েছেন, সম্মান দাও আর সম্মান নাও। সঙ্গে পরামর্শ নিতে এবং সম্মান দিতে তিনি সর্বদা প্রস্তুত বলেও জানিয়েছেন। টুইটবার্তায় নবীন লিখেন,‘পরামর্শ নিতে এবং সম্মান জানাতে সর্বদা প্রস্তুত।

ক্রিকেট ভদ্রলোকের খেলা। তবে কেউ যদি বলে আপনারা সবাই আমার পায়ের নিচে রয়েছেন এবং থাকবেন। তাতে তিনি কেবল আমার বিষয়েই কথা বলছে না আমার মানুষ সম্পর্কেও কথা বলছেন।’ এর আগে আফ্রিদি এক টুইটবার্তায় লিখেছিলেন, ‘তরুণ খেলোয়াড়দের কাছে আমার পরামর্শটা সহজ ছিল, খেলাটি খেলো এবং আপত্তিজনক কথাবার্তায় লিপ্ত হইও না।

আফগানিস্তান দলে আমার বন্ধু রয়েছে এবং তাদের সঙ্গে আমার খুবই সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক। প্রতিপক্ষের প্রতি শ্রদ্ধা হলো খেলাটির মুল চেতনা।’ ঘটনাটার শুরুটা হয়েছিল অবশ্য মোহাম্মদ আমির এবং নাভিনকে দিয়ে। ক্যান্ডির বিপক্ষে ১৯৭ রানের লক্ষ্যে খেলতে নামে আফ্রিদির গল।

শুরুর দিকে বেশ উত্তেজনাপূর্ণ এক ম্যাচের আভাস মেললেও শেষ দিকে অবশ্য প্রতিযোগিতা ধরে রাখতে পারেনি দলটি। দ্বিতীয় ইনিংসের ১৯তম ওভারে নবীনের বিপক্ষে ব্যাট করছিলেন আমির। যেখানে নবীনের প্রথম বলেই ছক্কা মারেন বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান। তখনই একচোট তর্ক হয় তাদের মাঝে। এরপরের দুই বল অবশ্য ডট দেন এই আফগান পেসার। তারপর অবশ্য আমিরকে কথা শোনাতে ভুল করেননি ডানহাতি এই পেসার।

পাঠকের মতামত:

ক্রিকেট এর সর্বশেষ খবর

ক্রিকেট - এর সব খবর



রে