| ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

আমি জানতাম, আমার নাগালে বল দিলে ছক্কা মারতে পারব : জাদেজা

২০২০ অক্টোবর ৩০ ১৫:০৭:২৬
আমি জানতাম, আমার নাগালে বল দিলে ছক্কা মারতে পারব : জাদেজা

প্রথম লেগে ভুল করেছিল চেন্নাই সুপার কিংস। এবার আর কোনও ভুল হতে দিলেন না রবীন্দ্র জাদেজা। ১৯ তম ওভারেই খেলা শেষ করে দিয়েছিলেন। তারপর দু’বলে দুটি ছক্কা মেরে দলকে জেতালেন জাদেজা। আর চেন্নাইয়ের সেই জয়ের সৌজন্যে কার্যত প্লে-অফের দৌড় থেকে ছিটকে গেল কলকাতা নাইট রাইডার্স। শেষ দুই বলে প্রয়োজন ৭ রান। ওভারের আগের চারটি বল দারুণ করেছেন বোলার। ম্যাচ হেলে প্রতিপক্ষের দিকে। কিন্তু পরের দুই বলে পাশার দান উল্টে দিলেন রবীন্দ্র জাদেজা। টানা দুই ছক্কায় নাটকীয় জয় এনে দিলেন চেন্নাই সুপার কিংসকে।

দলকে জেতানোর পর জাদেজা বললেন, নাগালে বল পেলেই ছক্কায় ওড়ানোর বিশ্বাস তার ছিল। আইপিএলে বৃহস্পতিবারের ম্যাচটিতে জয়ের পথ তৈরি করে ফেলেছিল কলকাতা নাইট রাইডার্স। ৩ ওভারে চেন্নাইয়ের যখন প্রয়োজন ৩৪ রান, ১৮তম ওভারে প্যাট কামিন্স দেন মাত্র ৪ রান। কিন্তু পরের ওভারে আবার বদলে যায়

চিত্র।

লকি ফার্গুসনের ওভার থেকে আসে ২০ রান, দুটি চার ও একটি ছক্কা মারেন জাদেজা। শেষ ওভারে চেন্নাইয়ের প্রয়োজন পড়ে ১০ রান। কলকাতার তরুণ পেসার কমলেশ নাগারকোটি দুর্দান্ত বোলিংয়ে প্রথম ৪ বলে দেন কেবল ৩ রান। এরপর জাদেজার ঝলক। পঞ্চম বলটি ছিল অফ স্টাম্পের একটু বাইরে লেংথ বল। মিড উইকেট দিয়ে গ্যালারিতে আছড়ে ফেলেন জাদেজা। শেষ বলটি আবার লেংথ বল, এবার ছক্কা ওয়াইড লং অন দিয়ে।

১১ বলে ৩১ রানের ক্যামিও খেলে জাদেজা বললেন, দলকে জেতানোর বিশ্বাস তার ছিল। “নেটে খুব ভালো ব্যাটিং করছিলাম আমি, ম্যাচেও চেয়েছি সেটাই ধরে রাখতে। শেষ ২ ওভারে আসলে ভাবাভাবির খুব বেশি কিছু থাকে না। স্রেফ বল দেখে শট খেলার ব্যাপার। আমি চেষ্টা করছিলাম, শরীরের শেইপ ঠিক রেখে নিজের শক্তির জায়গায় আস্থা রাখতে। কারণ আমি জানতাম, আমার নাগালে বল দিলে ছক্কা মারতে পারবই। ব্যাপারটি খুবই সিম্পল।”এই জয়ের আগেই শীর্ষ চারের লড়াই থেকে ছিটকে গেছে চেন্নাই। তবে এই পরাজয়ের কলকাতার সম্ভাবনায় লেগেছে বড় চোট।

পাঠকের মতামত:

ক্রিকেট এর সর্বশেষ খবর

ক্রিকেট - এর সব খবর



রে