| ঢাকা, শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৫ কার্তিক ১৪২৭

লজ্জাজনক হারের পর অন্যরকম মতামত দিলেন মর্গ্যান

২০২০ অক্টোবর ১৭ ১২:২০:১৮
লজ্জাজনক হারের পর অন্যরকম মতামত দিলেন মর্গ্যান

গতকাল মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে বড় ম্যাচের কয়েক ঘন্টা আগেই নিজেদের অধিনায়ক বদলের সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছিল কলকাতা নাইট রাইডার্স। উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান দীনেশ কার্তিকের জায়গায় নতুন অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছিলেন ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক ইয়ন মর্গ্যান।

কিন্তু অধিনায়ক বদলের পরেও মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে হারের রেকর্ড আর বদলাল না কলকাতা নাইট রাইডার্সের। এবারের আইপিএল এর সবথেকে একপেশে ম্যাচে কলকাতা নাইট রাইডার্সকে আট উইকেটে হারিয়ে লিগ টেবিলের শীর্ষে পৌছাল চার বারের আইপিএল জয়ী ফ্র্যাঞ্চাইজি।

আর এই ম্যাচে ব্যাটিং ও বোলিং – দুই বিভাগেই ব্যর্থ হয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। একদিকে কলকাতা নাইট রাইডার্সের টপ ও মিডল অর্ডারকে একেবারে পর্যদুস্ত করে ছেড়ে দিয়েছিল মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের পেসার ও স্পিনাররা। অন্যদিকে বোলিংয়ে কার্যত হেসেখেলে প্রয়োজনীয় ১৪৯ রান তুলে ফেলেছিল মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের ব্যাটসম্যানরা। অধিনায়কত্বের দায়িত্ব নিয়েই প্রথম ম্যাচে এভাবে হারের জেরে প্রশ্ন উঠল ইয়ন মর্গ্যানের ভূমিকা নিয়ে। যদিও এই হার নিয়ে বেশ অন্যরকম মতামত জানালেন ইংরেজ অধিনায়ক।

ম্যাচ শেষে সাংবাদিক বৈঠকে এই হারের সম্বন্ধে যখন জিজ্ঞাসা করা হয়, তখন ইয়ন মর্গ্যান জানান যে কলকাতা নাইট রাইডার্স কখনও রেসে ছিল না। সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে মর্গ্যান জানিয়েছেন, “চার ও পাঁচ উইকেট পড়ে যাওয়ার পর, আমরা সত্যি বলতে গেলে কখনই রেসে ছিলাম না। হয়ত আমরা শেষের দিকে বোলিং করার জন্য একটা মোটামুটি রান করেছিলাম, কিন্তু যেভাবে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স শুরু করেছিল, সেই সময় তাদের আটকানো খুবই মুশকিল ছিল।”

এরপর সাংবাদিকরা মর্গ্যানকে জিজ্ঞাসা করেন যে হঠাত কেন তার আগে দীনেশ কার্তিককে ব্যাটিংয়ে পাঠানো হল? এই নিয়ে গোটা ক্রিকেট মহলই অবাক হয়ে গিয়েছিল। এই প্রশ্নের জবাবে কেকেআর অধিনায়ক ইয়ন মর্গ্যান জানিয়েছেন, “আমাদের ব্যাটিং লাইন আপের চার, পাঁচ ও ছয় নম্বর অত্যন্ত অভিজ্ঞতা সম্পন্ন। দল ও ম্যাচের পরিস্থিতি অনুযায়ী, আমরা চেষ্টা করি সেই জায়গায় নিজেদের সেরাটা দেওয়ার। আজ সেটি খুব একটা তফাত গড়তে পারেনি, কারণ আমরা সকলেই অনেক আগে ব্যাট করতে নেমে পড়েছিলাম।”

সবমিলিয়ে এখনও অবধি ২১ বার মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের কাছে পরাস্ত হয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। এক সময় নাইটদের স্কোর ছিল ৬৭/৫। সেখান থেকে ভালো একটি পার্টনারশিপ গড়ে কলকাতা নাইট রাইডার্সকে একটি ভদ্রস্থ স্কোরে নিয়ে গিয়েছিলেন অধিনায়ক ইয়ন মর্গ্যান এবং পেসার প্যাট কামিন্স। নিজের টি২০ কেরিয়ারের প্রথম অর্ধশতরান করেন কামিন্স। ৩৬ বলে ৫৩ রান করেছিলেন কামিন্স, অন্যদিকে তাকে যোগ্য সহায়তা দিয়ে ২৯ বলে ৩৯ রানের ইনিংস খেলেন মর্গ্যান। কিন্তু মুম্বইয়ের ওপেনিং পার্টনারশিপে রোহিত শর্মা ও কুইন্টন ডি ককের ৯৪ রানের পার্টনারশিপেই ম্যাচ হাত থেকে বেরিয়ে যায় নাইট রাইডার্সের।

পাঠকের মতামত:

ক্রিকেট এর সর্বশেষ খবর

ক্রিকেট - এর সব খবর



রে