| ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ৭ কার্তিক ১৪২৬

পেট পরিষ্কার রাখার সহ'জ কয়েকটি ঘরোয়া প্রতিকার

২০১৯ অক্টোবর ০৪ ২১:৫৮:৫৪
পেট পরিষ্কার রাখার সহ'জ কয়েকটি ঘরোয়া প্রতিকার

পেট পরিষ্কার রাখার- সকাল সকাল পেট পরিষ্কার না হলে সারাদিন একটা অস্বস্তি কাজ করে। কোনও কাজ মন দিয়ে করা যায় না। আপনার যদি পেটের সমস্যা আছে, পেট পরিষ্কার হয় না, তবে আজ আপনাকে কয়েকটি ঘরোয়া প্রতিকারের স'ম্পর্কে জানাছি।

নীচে আম'রা আপনাকে পেট পরিষ্কার করার জন্য দশটি ঘরোয়া প্রতিকারের কথা বলছি। প্রথম উপায়টি কাজ করতে সময় নেয়, তবে এটি আপনার সামগ্রিক স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারি ভাল।

১. পানিতে ভাসিয়ে দিন

হ'জমশক্তি ঠিক থাকলে তবেই পেট সাফ হবে। তাই হ'জমশক্তি ভালো রাখতে প্রচুর পানি খান। প্রতিদিন নিয়ম মেনে ৬ থেকে ৮ গ্লাস পানি পান করুন।

আপনার খাদ্য তালিকায় সেসব সবজি ও ফল রাখু'ন যাতে পানি রয়েছে। লাউ, কাঁচা টমেটো, তরমুজ, পেঁপে, আপেল ইত্যাদি। এর থেকেও শরীরে পানির যোগান সঠিক পরিমানে হয়। ফলে পাচন ক্রিয়া সক্রিয় থাকে। খাবার ঠিক মত হ'জম হয়।

পানি খাওয়ার এই অভ্যাস কয়েক সপ্তাহ ধরে মেনে চলুন আপনার পেটের সমস্যা কমে যাবে। পেট একদম পরিষ্কার থাকবে।

২. সন্ধক লবন

যাদের কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা আছে বা যাদের প্রতিদিন পেট পরিষ্কার হয় না ভালো করে তাদের জন্য এই পদ্ধতি ব্যাপক কার্যকরী।

সকাল সকাল উঠেই উষ্ণ গরমপানিতে ২ চা চামচ সন্ধক লবন মিশিয়ে খালি পেটে খেয়ে নিন। খাওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই দেখবেন আপনার পা বার্থরুমের দিকে চলতে শুরু করেছে।

সকাল সন্ধ্যে দুবার এটি খালিপেটে খাওয়া যেতে পারে। তবে খাওয়ার পর দুবার বার্থরুম যেতে হতে পারে।

৩. মৌরি + জিরার গুঁড়ো

২ চা চামচ মৌরি ও ২ চামচ জিরার গুঁড়ো নিন। হালকা আঁচে কড়াইয়ে নেড়ে নিন। তারপর গুঁড়ো করে একটি পাত্রে রেখে দিন। প্রতি ৩ থেকে ৪ ঘণ্টা অন্তর অন্তর অল্প অল্প করে খান।

৪. ইসবগুল

ইসবগুল পেটে পরিষ্কার করে অনেকেই জানেন। কিন্তু যারা খান না তাদের বলবো, আলস্য ছেড়ে এবার থেকে রোজ রাতে ঘুমানোর আগে ইসবগুল খাওয়ার অভ্যাস করুন। দেখবেন সকাল সকাল পেট হালকা হয়ে যাবে চোখের নিমেষে।

৫. জোয়ান

জোয়ান খাওয়া পেটের জন্য খুবই ভালো। একটি বোতলে জোয়ান ভরে বিছানার পাশে রেখে দিন। রোজ রাতে এক চিমটে জোয়ান খেয়ে পানি খান এক গ্লাস। এতে গ্যাসের সমস্যা থাকলে তা সকালে উঠলেই হালকা হয়ে যাবে। আর পেট হবে সাফ।

৬. তুলসী পাতা

সকালে তুলসী গাছের কয়েকটি পাতা চিবিয়ে খালি পেটে খান। এটি আপনার দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করবে এবং হ'জমশক্তি বাড়াবে।

৭. অ্যালো'ভেরা (ঘৃতকুমা'রী) জুস

অ্যালো'ভেরার রস জুস হিসেবে খেলে অন্ত্রে জলের পরিমাণ বেড়ে যায়। গবেষণা থেকে জানা গেছে যে অন্ত্রে থাকা পানি মল পরিষ্কার করতে সাহায্য করে। আপনার যদি কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা হয় তবে আপনার প্রতিদিনের রুটিনে অ্যালো'ভেরার জুস আজই অ্যাড করা উচিত।

অ্যালো'ভেরা বা ঘৃতকুমা'রী শরীরের নানা অংশের জন্য উপকারি। পেটের সাথে সাথে স্কিন, চুলের জন্য এটি আপনারা খেতে পারেন।

৮. তিসি

তিসির বীজ বা ফ্লেক্সসিড পিষে এক চামচ পাউডার তৈরি করুন। এক গ্লাস পানিতে এটি মিশিয়ে সকালে ব্রেকফাস্টের আধা ঘন্টা আগে এটি পান করুন। আবার রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে।

৯. হিঙ

এক চা চামচ হিঙ একগ্লাসে পানিতে মিশিয়ে পান করুন সপ্তাহে তিনবার করে এটি আপনার খাবার হ'জম হতে সাহায্য করবে।

১০. ক্যাস্টর অয়েল + কমলা লেবুর রস

উষ্ণ পানিতে ২ চা চামচ কমলা লেবুর রস ও ২ চা চামচ ক্যাস্টর অয়েল মিশিয়ে ১৫ থেকে ২০ মিনিট অন্তর পান করুন। যতক্ষণ না পেট পরিষ্কার হচ্ছে এটি খান। দেখবেন দুবার খাওয়ার পরই বার্থরুম যেতে হচ্ছে। কমলা লেবু সব সময় পাওয়া যায় না। না পেলে পাতিলেবু ব্যবহার করতে পারেন।

সতর্কতা: উপরে অনেকগু'লি উপায় ব্যাখ্যা করেছি। আপনি যদি অন্য পদ্ধতি থেকে উপকৃত না হন তবেই ক্যাস্টর অয়েল পদ্ধতিটি ব্যবহার করুন। এবং হ্যাঁ, এভাবে আপনার পেট পরিষ্কার করার ঠিক ২ মাস পরে আবার এটি ট্রাই করবেন। ঘনঘন এটি ব্যবহার করবেন না।

অস্বীকৃতি: পেট পরিষ্কার করার জন্য আম'রা আপনাকে ঘরোয়া প্রতিকার বা আয়ুর্বেদিক প্রতিকার স'ম্পর্কে জানালাম। যদিও এতে কোনও পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই, তবুও যদি আপনার আরও সমস্যা হয় তবে ডাক্তারের পরাম

পাঠকের মতামত:

স্বাস্থ্য এর সর্বশেষ খবর

স্বাস্থ্য - এর সব খবর



রে