| ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬

সেন্সরবোর্ডের নোটিশের জবাব দিলেন শাকিব খান

২০১৯ জুলাই ০৪ ১৫:১৬:১৪
সেন্সরবোর্ডের নোটিশের জবাব দিলেন শাকিব খান

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের পাঠানো নোটিশের জবাব দিয়েছেন ‘পাসওয়ার্ড’ চলচ্চিত্রের প্রযোজক ও নায়ক শাকিব খান। সোমবার (১ জুলাই) বোর্ড তা গ্রহণ করেছেন। বিষয়টি জানিয়েছেন বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান নিজামুল কবীর।

নোটিশের জবাবে শাকিব খান জবাব দেন, এসকে ফিল্ম এর যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত ছবিটি ‘নকল নয়’। এছাড়া ছবিটির বেশকিছু দৃশ্য নিয়ে যুক্তি তুলে ধরেছেন। আরো উল্লেখ করেন, এটি কোনোভাবেই কোরিয়ান ‘দ্য টার্গেট’ ছবির নকল নয়। এ ছাড়া তামিল ‘ডাইনামাইট’ এর অনুকরণ করে নির্মাণ করা হয়নি। গত ২৪ জুন ‘নকল ছবি কিনা’ তা জানতে চেয়ে ছবির প্রযোজকদের বিরুদ্ধে কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠায় সেন্সর বোর্ড। তারই জবাব দিলেন শাকিব খান।

এর আগে ছবিটি নকল ও এর সপক্ষে পরিচালক মালেক আফসারীর নজিরবিহীন বক্তব্য প্রসঙ্গে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডে অভিযোগপত্র জমা দেয় নাট্য ও বিজ্ঞাপন নির্মাতা আনন্দ কুটুম। বলা হয়, কোরিয়ান ছবি ‘দ্য টার্গেট’ থেকে নকল করা হয়েছে ‘পাসওয়ার্ড’।

অভিযোগপত্রে আনন্দ কুটুম উল্লেখ করেন, পাসওয়ার্ড’ ছবির কোথাও উল্লেখ নেই এটি ‘দ্য টার্গেট’ ছবির কপিরাইট নিয়ে নির্মিত হয়েছে। ছবির কোথাও উল্লেখ নেই এটি বিদেশি সিনেমার ছায়া অবলম্বনে নির্মিত। ছবিটির গানের মিল রয়েছে। তাছাড়া ছবির কোথাও কোনো উল্লেখ নেই ছবিটির লোকেশন টার্গেট সিনেমা থেকে অনুসরণ করে।

এদিকে সেন্সর বোর্ডে পাঠানো চিঠির ব্যাখ্যায় প্রযোজকদের পক্ষ থেকে বলা হয়, ‘দ্য টার্গেট’ সোয়া ১ ঘণ্টার ছবি। আর ‘পাসওয়ার্ড’ ২ ঘণ্টা ২০ মিনিটের ছবি। একঘণ্টা বেশি এর দৈর্ঘ্য। এছাড়াও ‘দ্য টার্গেট’-এর চরিত্রের সঙ্গে ‘পাসওয়ার্ড’-এর চরিত্র মিলে না। কোরিয়ান ছবিতে কোনো নায়িকা চরিত্র কিংবা খলনায়ক মিশা সওদাগরের মতো চরিত্র নেই।

চিঠির ব্যাখ্যায় সন্তুষ্ট কিনা জানতে চাইলে সেন্সর বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান নিজামুল কবীর বলেন, আমরা প্রযোজকের কাছ থেকে নোটিশের জবাব পেয়েছি। এ বিষয়ে আমি কোনো মন্তব্য করতে চাই না। আমরা মিটিংয়ে এর সিদ্ধান্ত জানাবো।

উল্লেখ্য, গত ঈদুল ফিতরে ছবিটি সারাদেশের ১৭৭টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় ‘পাসওয়ার্ড’ ছবিটি। কিন্তু মুক্তির আগেই ছবির নির্মাতা মালেক আফসারীর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অবাস্তব স্ট্যাটাস দিয়ে নিজেই আগুনে ঘি ঢালেন। তিনি ঘোষণা দেন, নকল প্রমাণ করতে পারলে ১০ লক্ষ টাকা পুরস্কার এবং চলচ্চিত্র নির্মাণ ছেড়ে দেবেন। এরপর থেকে চলচ্চিত্রটি নিয়ে নকলের অভিযোগ আনেন। ছবিটির কেন্দ্রীয় চরিত্রে আছেন শাকিব খান, ইমন ও বুবলী। আরও অভিনয় করেছেন মিশা সওদাগর, অমিত হাসানসহ অনেকে।

পাঠকের মতামত:

বিনোদন এর সর্বশেষ খবর

বিনোদন - এর সব খবর



রে